রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১১:০১ অপরাহ্ন
সবশেষ :
শ্রীপুরে আমার বাড়ি আমার খামার প্রকল্পের টাকা বিতরণ শ্রীপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিদায় সংবর্ধনা শ্রীপুর পৌরসভাকে আধুনিক পৌরসভায় রূপান্তর করতে চান সফল ছাত্র রাজনীতিক রবিন অসুস্থ সাংবাদিকের পাশে দাঁড়ালো শ্রীপুর সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থা শ্রীপুরে দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে প্রাণনাশের হুমকি বিআরটিএ-এর সহকারি রাজস্ব কর্মকর্তার গ্রাহক হয়রানি-দুর্ব্যবহারের অভিযোগ শ্রীপুরে মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর, জমি দখলের ঘটনায় মামলা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন ও সামাজিক দায়বদ্ধতা মাথায় রেখে সাংবাদিকদের কাজ করতে হবে সাংবাদিকদের কল্যাণে কাজ করবে শ্রীপুর সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থা শ্রীপুরে সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করে জমি দখলে নেয়ার হুমকি

শ্রীপুরে সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করে জমি দখলে নেয়ার হুমকি

শ্রীপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৫ বার পঠিত

গাজীপুরের শ্রীপুরে এক কৃষক পরিবারের পাকা সীমানা প্রাচীর ভেঙে স্থাপনা তৈরীর আসবাবপত্র লুটে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (২১ সেপটেম্বর) বেলা ১১ টার দিকে শ্রীপুর পৌরসভার গিলার চালা আসপাডা মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কৃষক পরিবারের পক্ষ থেকে আশরাফুল আলম বাদী হয়ে বিকেলে ১০জনসহ অজ্ঞাত নামা ৭/৮ জনের বিরোদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হলে ও পুলিশ তা আমলে নেয়নি বলে জানান কৃষকের মেয়ে শাহানাজ আক্তার। অভিযুক্তরা হলো একই এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে হাছেন আলী (৫৫), আবুল হাশেম (৫০),আবুল হোসেন (৫২), আবুল কাশেম (৫১), হাছেন আলীর ছেলে আমজাদ হোসেন (৩৬) ও শাকিল (৩০), আবুল কাশেমের ছেলে বিল্লাল হোসেন (৩২) ও জাহাঙ্গীর আলম (২৮), আবুল হাশেম ছেলে সোহেল (৩০) ও জুয়েল (২৮)।

তিনি জানান, দীর্ঘদিন যাবত কৃষক পরিবার সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে শান্তিপূর্ণভাবে ওই জায়গাটিতে বসবাস করে আসছিলেন। সোমবার বেলা এগারটার দিকে গিলারচালা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে আবুল হাশেম, আবুল কাশেমের ছেলে বিল্লাল হোসেন, হাসানের ছেলে আমজাদ হোসেন ও সোহেল ভাড়া করা লোকজন নিয়ে কৃষক পরিবারের দখলে থাকা সীমানা প্রাচীর ভেঙে ফেলে। এসময় ওই জমিতে থাকা বিভিন্ন স্থাপনা তৈরীর টিন, বাঁশ ও অন্যান্য আসবাবপত্র লুটে নেয়। অভিযুক্তরা কেওয়া মৌজার এসএ-১৩৮৭ নম্বর দাগের সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল নিতে স্থাপনা নির্মাণের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

তিনি আরও জানান, তাদের অভিযোগটি শ্রীপুর থানা পুলিশ আমলে নেয়নি। ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করার সীমানা প্রাচীর ভেঙে ফেলায় তারা খুন জমি জবরদখল আতঙ্কে ভুগছেন। অভিযুক্ত বিল্লাল হোসেন সাংবাদিকদের জানান, পাকা সীমানা প্রাচীর ভাঙচুরের কথা স্বীকার করেন এবং যা ঘটেছে পরে দেখা যাবে।
এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার ইমাম হোসেন জানান, দুই পক্ষের দাবি অনুযায়ী আগামী শনিবার পর্যন্ত তাদেরকে স্থানীয় ভাবে ঘটনা নিষ্পত্তির জন্য জন্য সময় দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Raytahost
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: রায়তা-হোস্ট
banglatimes_y6e209